জারস সন্তান

জারস সন্তান
✍️ পরশ মনি দে
হে বাংলা মা,
তোমার বুকে কত গর্বিত সন্তান ছিল গিয়েছে,
মাইকেল মধুসূদন, জসীম উদ্দীন, প্রমুখ
তোমায় নিয়ে কত গর্ব করেছে।

তাদের স্মৃতিপঠে, তোমার সাতকাঁহন,
এমন জন্মভূমি পেয়ে বলেছিলো
স্বার্থক এ জনম।

বলেছিলো তারা,
বাংলার হিন্দু, বাংলার বৌদ্ধ,
বাংলার খ্রিস্টান, মুসলমান,
বাংলার বুকে একসূত্রে গাঁথা
থাকিবে অম্লান।

বলেছিলো তারা,
পুরুষ রমনী সমান অধিকার
ভেদাভেদ নায় কাহার,
আরো বলেছিলো,
ধর্ম যার যার উৎসব সবার।

কিছু যে আজ,
কিছু মোল্লাগণ,
তাহা মানতে নারাজ।

৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ ও কি
তবে মিথ্যে ছিলো?
হিন্দু, ইসলাম, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান মিলে
যে স্বাধীনতা অর্জন করেছিলো

মাগো,
হিন্দু বাড়িতে পাল্টা গান হইতো,
নেমন্তন দিতো আমরা যাইতাম।
কত একটা সম্প্রতির মেলবন্ধন
মোল্লারা আজ বলে তাহা হারাম।

তখন তো ছিলো না
সে জাতি বিবাদ,
তখন তো ছিলো না
কোনো ধর্মবাদ।

তারা মা,
ধর্মের দোহাই দেয়।
তারা অধিকারের কথা বলে।
তারা আজ অন্যের ধর্ম ছিনিয়ে নিতে চাই।
তারা আজ অন্যের স্বাধীনতা লুটে নিতে চাই।

তারা বলে,
আমরা ইমানদার
দেখিনি মা তাদের কাহারো মধ্যে বিনয়।
ভাঙছে ঘর, ভাঙছে মন্দির
করছে অন্যায়।

কেনো মা,
৭১ এর যুদ্ধ কেনো হলো?
কবি নিরপেক্ষ কবিতা কেন লিখল?

তবে কি, ধর্মগ্রন্থে নতুন পরিবর্তন এসেছে?
তবে কি,সৃষ্টিকর্তা পাল্টেছে?
নাকি তাদের নোংরা মানষিকতার আচার?
কেনো হচ্ছে এত অনাচার?
কেনো হচ্ছে এত দূরাচার?

ধীরে ধীরে
ইতিহাস হচ্ছে ম্লান,
জবাব দাও মা
তবে ইতিহাস বিদরা কি তোমার জারস সন্তান??

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top